ঢাকা শুক্রবার, অক্টোবর ৭, ২০২২

Popular bangla online news portal

বিএনপির রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন বাতিলের দাবিতে ইসিকে আলটিমেটাম


নিউজ ডেস্ক
৮:৩৯ - সোমবার, সেপ্টেম্বর ৫, ২০২২
বিএনপির রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন বাতিলের দাবিতে ইসিকে আলটিমেটাম

বিএনপি-জামায়াতের শাসনামলে মানবাধিকার লঙ্ঘন করে হাজার হাজার মানুষ খুন, গুম, ধর্ষণ, বোমা হামলা ও নির্যাতনের বিচারের দাবিতে প্রতিবাদী সমাবেশ ‘মায়ের কান্না’ ও তথ্যচিত্র প্রদর্শনী কর্মসূচি পালন করেছে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

রোববার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে আয়োজিত এই কর্মসূচি থেকে বিএনপির রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন বাতিলের দাবিতে নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়েছে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আল মামুনের সঞ্চালনায় প্রতিবাদী সমাবেশ ও তথ্য চিত্র প্রদর্শনী কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল।

এতে আরও বক্তব্য রাখেন সম্প্রীতি বাংলাদেশের সদস্যসচিব অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের শাসনামলে নির্যাতনের শিকার পূর্ণিমা রাণী শীল, ১৯৭৭ সালে জিয়াউর রহমানের হাতে নির্যাতিত সেনা পরিবারের সদস্য আশরাফুল ইসলাম, সংগঠনের উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন মজুমদার, আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইবুনালের অন্যতম সাক্ষী বীর মুক্তিযোদ্ধা জহির উদ্দিন বিচ্ছু জালাল ও ভাস্কর্য শিল্পী রাশা।

সমাবেশে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সেক্রেটারি আল মামুন বলেন, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি ক্ষমতায় আসার মাধ্যমে গণতন্ত্রের বিজয় হয়েছিল। এই বিজয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে বঙ্গবন্ধু কন্যার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য সবসময় মাঠে থাকবে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। অবৈধ সামরিক শাসক খুনী জিয়া কর্তৃক বিনা বিচারে হাজার হাজার মুক্তিযোদ্ধা সামরিক অফিসারকে ও সৈনিককে হত্যার অপরাধে খুনি জিয়ার মরণোত্তর বিচার করতে হবে।

তিনি বলেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল সম্প্রতি খালেদা ও তারেককে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে আখ্যা দিয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের চরমভাবে অবমাননা করেছেন। মির্জা ফখরুলসহ বিএনপির নেতারা মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতির গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের অবমাননা করার অপরাধে মির্জা ফখরুলকে দ্রুত গেপ্তারের দাবি জানাচ্ছে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। 

মামুন আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুকে জাতির পিতা মেনে এদেশে সব রাজনৈতিক দলকে রাজনীতি করতে হবে। বিএনপিসহ কতিপয় গণতন্ত্র মঞ্চ নামক রাজনৈতিক দলগুলো এখনও পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুকে জাতির পিতা হিসেবে মেনে নেয়নি। বঙ্গবন্ধুকে অস্বীকার করা মানে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব অস্বীকার করার শামিল। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি ও অগ্নি সন্ত্রাসী দল বিএনপির রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন বাতিল না করলে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে নিয়ে নির্বাচন কমিশন কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচি ঘোষণা করবে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

প্রতিবাদী সমাবেশ ‘মায়ের কান্না’ থেকে চার দফা দাবি জানানো হয়েছে। দাবিগুলো হলো

বিএনপি-জামায়াত জোটের শাসনামলে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় সারা দেশে একযোগে বোমা হামলা, অগ্নি সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ সৃষ্টি, খুন, ধর্ষণ ও নির্যাতনের সঙ্গে জড়িতদের বিশেষ ট্রাইব্যুনালে বিচার করতে হবে।

১৯৭৫ থেকে ১৯৮১ সাল পর্যন্ত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ হাজার হাজার মুক্তিযোদ্ধা সামরিক কর্মকর্তা ও সৈনিক হত্যার অপরাধে জিয়ার মরণোত্তর বিচার করতে হবে।

মানবাধিকার লঙ্ঘন করে আন্দোলনের নামে সমগ্র দেশে আগুন দিয়ে হাজার হাজার মানুষ পুড়িয়ে হত্যা, খুন, ধর্ষণ ও নির্যাতনের অপরাধে বিএনপির রাজনীতি স্থায়ীভাবে নিষিদ্ধসহ রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন বাতিল করতে হবে।

জঙ্গিবাদ, অগ্নি সন্ত্রাস, দুর্নীতি, ধর্ষণ ও বোমা হামলার মদদদাতা বিদেশে পলাতক আসামি তারেক রহমানকে দ্রুত দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করতে হবে।