ঢাকা বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২

Popular bangla online news portal

প্রথমবারের মতো রাঙ্গামাটির সাজেকে এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র চালু


নিউজ ডেস্ক
৮:৪০ - বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২২
প্রথমবারের মতো রাঙ্গামাটির সাজেকে এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র চালু

আজ থেকে সারা দেশে শুরু হয়েছে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। তবে প্রথমবারের মতো রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক ইউনিয়নের দুর্গম বাঘাইহাট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সেনাবাহিনীর বাঘাইহাট জোন ও জনপ্রতিনিধি এবং স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তায় প্রথমবার বাঘাইহাট উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বাঘাইহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের কেন্দ্র সচিব মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম বলেন, সাজেকের দুর্গম শতাধিক গ্রাম থেকে ২২৪ জন শিক্ষার্থী এবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। নতুন কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে এসে শিক্ষার্থী ও অভিভাবক মহলেও ব্যাপক উৎসাহ তৈরি হয়েছে।

সাজেক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অতুলাল চাকমা বলেন, আগে ৪০ কিলোমিটার দূরে গিয়ে পরীক্ষা দিতে হতো। এতে ছাত্র-ছাত্রীদের মূল্যবান সময় ও অভিভাবকদের আর্থিক অনেক ক্ষতি হতো। তবে সেনাবাহিনীর সহায়তায় বাঘাইহাটে পরীক্ষা কেন্দ্র চালু হওয়ায় এলাকাবাসী ও ছাত্র-ছাত্রীদের অনেক উপকার হয়েছে। একেবারে ঘরের উঠানে পরীক্ষা দেয়ার মতো।

সজল চাকমা নামে এক পরীক্ষার্থী বলে, আগে উপজেলা সদরে বাসা ভাড়া করে পরীক্ষা দিতে হতো। এখন বাড়ি  থেকে পরীক্ষা দিতে পারছি। এতে আমাদের কষ্ট, টাকা, সময় সবকিছু বাঁচবে। সেনাবাহিনী ও শিক্ষামন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় বাঘাইহাট উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শনে আসেন সেনাবাহিনীর বাঘাইহাট জোনের জোন কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কর্নেল মুনতাসীর রহমান চৌধুরী (পিএসসি)। এ সময় তিনি কেন্দ্রের সার্বিক ব্যবস্থা দেখে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন।

 পরে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বলেন, পাহাড়ে বর্তমান সরকারের ধারাবাহিক উন্নয়নের একটি অংশ হিসেবে সাজেকে এসএসসির পরীক্ষা কেন্দ্র চালু হয়েছে। এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সম্প্রীতির বন্ধন আরও সূদৃঢ় করতে হবে। পাহাড়ে সেনাবাহিনী উন্নয়নের পাশাপাশি সব সম্প্রদায়ের মধ্যে সম্প্রীতির সেই কাজই করছে।

প্রসঙ্গত, বাঘাইহাট উচ্চ বিদ্যালয়টি ১৯৯২ সালে বাঘাইহাট জুনিয়র হাই স্কুল নামে প্রতিষ্ঠিত হয়। তারপর ১৯৯৯ সালে ১ ইস্ট বেঙ্গলের সার্বিক সহযোগিতায় এমপিওভূক্ত হয়। পরবর্তীতে ১৪ বীরের সার্বিক সহযোগিতায় ২০১০ সালে জেএসসি পরীক্ষার কেন্দ্রের অনুমোদন হয়।